টুইটারে খবর পড়তে হলে দিতে হবে টাকা

এবার টুইটারে খবর পড়তে হলে দিতে হবে টাকা। এমনটাই জানানো হয়েছে টুইটারের তরফ থেকে।

টুইটারে শুধু ছবি বা ভিডিওর খোঁজ নয়, অনেকে খবরও পড়ে থাকেন। সংবাদমাধ্যমরাও (Media) টুইটারে খবরের লিংক দেন আর সেখান থেকেই টুইটার ব্যবহারকারীরা খবর পড়েন।

তবে খবর পড়ে পারিপার্শ্বিকের সাথে সামঞ্জস্য বজায় রেখে চলতে যারা অভ্যস্ত, তাদের জন্য এ যেনো খানিক দুঃসংবাদ বয়ে আনলেন ইলন মাস্ক। ২০২২ সালের অক্টোবরে ইলন মাস্কের মালিকানায় যাওয়ার পর থেকে সমালোচনা যেনো পিছু ছাড়ছে না টুইটারের। একের পর এক দুঃসংবাদ দিয়ে যাচ্ছে ব্যবহারকারীদের।

মাস্ক একটি টুইট করে নতুন এই নিয়মের কথা ঘোষণা করেছেন। সেখানে বলা হয়েছে, টুইটারে খবর পড়তে হলে দিতে হবে টাকা। খবর পড়ার জন্য বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমগুলো চাইলে মূল্য নির্ধারণ করতে পারে। আগামী মাস থেকে এই সুবিধা চালু করা হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে, প্রতিটি প্রতিবেদনের জন্য ন্যূনতম একটি মূল্য নির্ধারণ করা যেতে পারে। এছাড়া, সংস্থার ওয়েবসাইটের মাসিক সাবস্ক্রিপশনের ব্যবস্থাও থাকছে। সাবস্ক্রিপশন নিলে প্রতিবেদন প্রতি নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অনেক কম খরচে খবর পড়তে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

মূলত অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোর আয়ের উৎস বাড়াতেই এমন পদক্ষেপ ইলন মাস্কের। টেক বিলিয়নিয়র মাস্ক জানিয়েছেন, পরের মাস থেকেই শুরু হচ্ছে এই সুবিধা। সংবাদমাধ্যমগুলো তাদের খবর পড়ানোর জন্য ব্যবহারকারীদের থেকে টাকা নিতে পারবে। প্রতি আর্টিক্যালে প্রতিটা ক্লিক অনুযায়ী ধার্য হবে সেই অর্থ।

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যেই বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম তাদের ওয়েবসাইটের জন্য পে-ওয়াল ব্য়বহার করেন, যেখানে সাবস্ক্রিপশন নিলে তবেই প্রতিবেদন পড়া যায়। টুইটারের মালিকানা গ্রহণের পরই ইলন মাস্ক ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে টুইটার প্ল্যাটফর্মে পে-ওয়াল বাইপাস বসানো হতে পারে, যেখানে গ্রাহকদের টুইটারের মাধ্যমে খবর পড়ার জন্য টাকা দিতে হবে। সেই সময় ইলন মাস্ক জানিয়েছিলেন, টুইটারে ভুয়ো খবর রুখতে এবং গ্রাহকদের প্রয়োজন অনুযায়ী খবর পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

টুইটারের মালিকানা অধিগ্রহণের পর মাস্ক ‘টুইটার ব্লু’ নামের নতুন এক পরিষেবা চালু করেছেন। এটার মাধ্যমে টুইটারে যারা নীল চিহ্ন ব্যবহার করেন, তাদের ওই চিহ্ন রাখার জন্য আলাদা করে টাকা দিতে হবে বলে জানানো হয়। অনেকেই তা করেননি। সম্প্রতি তেমন কিছু তারকা প্রোফাইল থেকে নীল চিহ্ন সরিয়ে দিয়েছেন মাস্ক। সে নিয়ম নিয়ে কাটাছেঁড়ার মাঝে আবারো নতুন আর এক নিয়ম আনলেন তিনি।

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker