হৃদরোগে জামায়াত নেতা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদী মারা গেছেন

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আমৃত্যু সাজাপ্রাপ্ত দেলোয়ার হোসাইন সাঈদী মারা গেছেন। সোমবার রাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) রাত ৮টা ৪০ মিনিটে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

বিএসএমএমইউ পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মো. রেজাউর রহমান সোমবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

রোববার (১৩ আগস্ট) বিকেলে বুকের ব্যথায় অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে কাশিমপুর কারাগার থেকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বি এস এস এম ইউ তে পাঠানো হয়। 

২০১৯ সাল থেকে কাশিমপুর কারাগারে আছেন দেলোয়ার হোসাইন সাঈদী। এর আগে ২০১০ সালের ২৯ জুন রাজধানীর শাহীনবাগের বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয় তাকে।

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে হত্যা, অপহরণ, ধর্ষণ, নির্যাতন, অগ্নিসংযোগ, লুণ্ঠন, ধর্মান্তর করাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের আটটি অভিযোগ প্রমাণিত হলে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল দুটি অভিযোগে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেন। পরে রিভিউ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ তার মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

Image Description

সাঈদীর মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরপরই জামায়াতের নেতা-কর্মীরা বিএসএমএমইউর ডি ব্লকের গেটের সামনে এসে জড়ো হন।

রাত ১০টার সময় হাসপাতালের তিন নম্বর গেটের সামনে জামায়াতের নেতা-কর্মীদের জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করতে দেখা গেছে। এ সময় তাঁরা ‘নারায়ে তকবির আল্লাহু আকবার’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন। তখন হাসপাতালের ভেতরে ও বাইরে পুলিশ ও আনসার সদস্যদের সতর্ক অবস্থান নিতে দেখা যায়। বন্ধ করে দেওয়া হয় হাসপাতালের সব গেট। হাসপাতালে আসা রোগী ও দর্শনার্থীদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত করে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে। 

পিরোজপুর সাঈদী ফাউন্ডেশন মাঠে ১৫ আগস্ট ২০২৩ মঙ্গলবার দুপুর ২:০০ টার সময় দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। জামাতে ইসলামী নেতা নায়েবে আমির ও সাবেক এমপি দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর ১৫ আগস্ট ২০২৩ বাদ যোহর বাংলাদেশের জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে জানাজার নামাজ হওয়ার কথা থাকলেও সেখানে অনুমতি দেয়নি বাংলাদেশ পুলিশ।

পিরোজপুর জেলা জামায়াতের সহ-সেক্রেটারি মো. জহিরুল হক বলেন, হুজুরের মরদেহ নিয়ে ইতোমধ্যেই লাশবাহী ফ্রিজিং গাড়ি পিরোজপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে মরদেহ পৌঁছানোর পর দ্রুত জানাজা শেষ করে দাফন করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সাঈদী ফাউন্ডেশন প্রাঙ্গণে পারিবারিক কবরস্থানে বড় ছেলে রাফিক বিন সাঈদীর কবরের পাশেই তাকে সমাহিত করা হবে।

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker